সহজ ভাষায় ইলেক্ট্রিক্যাল প্রশ্ন ও উত্তর

0

পর্ব-৫

হ্যালো পাঠকবর্গ সহজ ভাষায় ইলেক্ট্রিক্যাল প্রশ্ন ও উত্তর এর আজকের পর্ব ৫ ।

১। ওয়্যান্ডিং কি?

উত্তরঃ ইলেক্ট্রিক্যাল মেশিন,যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জামাদির বিভিন্ন অংশের সুনির্দিষ্ট নিয়মানুযায়ি সুশৃঙখলভাবে বৈদ্যুতিক তার বা কোয়েল জড়ানোকে ওয়্যান্ডিং বলে।

২। ল্যাপ ওয়্যান্ডিং কাকে বলে?

উত্তরঃ যে ওয়্যান্ডিং এর সময় কোয়েল আর্মেচার এর পশ্চাৎ দিক এগিয়ে যায় কিন্তু সামনের দিক পিছিয়ে আসে তাকে ল্যাপ ওয়্যান্ডিং বলে। 

৩। ওয়েভ ওয়্যান্ডিং কাকে বলে?

উত্তরঃ Conductor এর যে connection এ আর্মেচার এর সম্মুখ ও পিছনে উভয় দিকই অগ্রসর হয়, তাকে ওয়েভ ওয়্যান্ডিং বলে। 

৪। পোল পিচ কি?

উত্তরঃ পাশাপাশি দুটি পোলের মধ্যবিন্দু হতে মধ্যবিন্দু পর্যন্ত দূরত্বকে পোল পিচ বলে।

৫। কয়েল পিচ কি?

উত্তরঃ পাশাপাশি দুইটি কয়েলের ব্যবধানকে কয়েল পিচ বলে।

৬। কমুটেটর পিচ কি?

উত্তরঃ কমুটেটরের দুইটি সেগমেন্টের দূরত্বকে কমুটেটর পিচ বলে।

৭। ফ্রন্ট পিচ কি?

উত্তরঃ আর্মেচারের যে দিকে কমুটেটর থাকে সেই দিকে একটি কয়েল যতগুলো কন্ডাক্টরকে অন্তর্ভুক্ত করে তাকে, ফ্রন্ট পিচ বলে।

৮। ব্যাক পিচ কি?

উত্তরঃ কমুটেটরের বিপরীত দিকে আর্মেচারের একটি কয়েল যতগুলো কন্ডাক্টরকে অন্তর্ভুক্ত করে তাকে ব্যাক পিচ বলে।

৯। গড় পিচ কি?

উত্তরঃ আর্মেচার ওয়ান্ডিং এর ফ্রন্ট পিচ এবং ব্যাক পিচ এর গড়কে অ্যাভারেজ পিচ বলে।

১০। কমুটেশন বলতে কি বুঝায়?

উত্তরঃ যে প্রক্রিয়ায় খুব অল্প সময়ের মধ্যে প্রতিটি কয়েলে কারেন্ট দিক পরিবর্তন করে এবং আর্মেচারে উৎপন্ন সমস্ত কারেন্ট বহিঃসার্কিটে প্রেরিত হয়, তাকে কমুটেশন বলে।

১১। রিয়্যাকটেন্স ভোল্টেজ কাকে বলে?

উত্তরঃ কমুটেশনের সময় আর্মেচার কয়েলের কারেন্ট দিক পরিবর্তন করে, ফলে ঐ কয়েলে একটি সেল্ফ ইন্ডিউসড ই এম এফ উৎপন্ন হয়। এই সেল্ফ ইন্ডিউসড emf কে রিয়্যাকটেন্স ভোল্টেজ বলে।

১২। রেসিডুয়াল ম্যাগনেটিজম কি?

উত্তরঃ ডিসি জেনারেটরের ফিল্ডে আগে থেকেই কিছু চুম্বকত্ব বিদ্যমান থাকে। এ চুম্বকত্বকে রেসিডুয়্যাল ম্যাগনেটিজম বলে।

১৩। জেনারেটরের ভাসমান অবস্থা কি?

উত্তরঃ প্যারালাল অপারেশনের জন্য আগত বা নতুন জেনারেটরের উৎপন্ন ভোল্টেজ এবং বাসবার ভোল্টেজ সমান হলে আগত জেনারেটর কোন কারেন্ট নিবে না একে জেনারেটরের ভাসমান অবস্থা বলে।

১৪। ডিসি মোটর কি?

উত্তরঃ যে ইলেক্ট্রিক্যাল মেশিন ডিসি শক্তি গ্রহন করে উহাকে যান্ত্রিক শক্তিতে রূপান্তরিত করে তাহাকে ডিসি মোটর বলে।

১৫। BHP কাকে বলে?

উত্তরঃ মোটরের শ্যাফট টর্ক ধরে হিসাব করলে যে অশ্ব ক্ষমতা পাওয়া যায়, উহাকে ব্রেক হর্স পাওয়ার বলে।

১৬। এডি কারেন্ট লস কাকে বলে?

উত্তরঃ বৈদ্যুতিক চুম্বকের কোরের মধ্য দিয়ে এডি কারেন্ট প্রবাহের ফলে কোরটি উত্তপ্ত হয়ে উঠে। এতে কিছুটা শক্তির অপচয় বা লস হয়। শক্তির এ অপচয় কেই এডি কারেন্ট লস বলে।

১৭। নাইক্রোম কী কী উপাদান নিয়ে গঠিত?

উত্তরঃ নিকেল=৬১%, ক্রোমিয়াম=১৫%, আয়রণ=২৪%

১৮। ডায়া-ম্যাগনেটিক পদার্থ কাকে বলে?

উত্তরঃ যে সব পদার্থ চুম্বক দ্বারা আকর্ষনের পরিবর্তে সামান্য বিকর্ষিত হয়, সেগুলোকে ডায়া-ম্যাগনেটিক পদার্থ বলে।

১৯। অ্যালনি কি?

উত্তরঃ অ্যালনি অ্যালুমিনিয়াম, নিকেল, এবং লোহা মিশ্রিত সংকর ধাতু। এতে ১০-১৫% অ্যালুমিনিয়াম, ২৫-৩০% নিকেল এবং বাকিটা লোহা থাকে।

২০। লস অ্যাঙ্গেল কী?

উত্তরঃ ইনসুলেটিং ম্যাটেরিয়ালস এর আড়াআড়িতে অল্টারনেটিং ভোল্টেজ প্রয়োগ করা হলে এর কারেন্ট প্রয়োগকৃত ভোল্টেজের সাথে পুরোপুরি ৯০ ডিগ্রী তে না থেকে সামান্য কম অ্যাঙ্গেলে অবস্থান করে। এটি যতটুকু কম অ্যাঙ্গেলে অবস্থান করে তাকেই লস অ্যাঙ্গেল বলে

২১। লেদার ওয়েড পেপার কি?

উত্তরঃ শিট আকার তৈরি পাতলা ভলকানাইজড ফাইবারকে লেদার ওয়েড পেপার বলে।

২২। অ্যাসবেসটস কি?

উত্তরঃ ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম দ্বারা গঠিত আঁশযুক্ত এক ধরনের খনিজ পদার্থ কেই অ্যাসবেস্টস বলে।

২৩। ডাই ইলেক্ট্রিক পদার্থ কি?

উত্তরঃ দুটি পরিবাহী পদার্থের মাঝে অপরিবাহী মাধ্যম হিসেবে ব্যবহৃত পদার্থকে ডাই ইলেক্ট্রিক পদার্থ বলে।

২৪। ফ্লাশ পয়েন্ট কি?

উত্তরঃ যে তাপমাত্রায় কোন একটি তরল ইনসুলেটিং ম্যাটেরিয়াল উত্তপ্ত হয়ে হটাৎ প্রজ্জলিত অগ্নিশিখা সৃষ্টি করে তাকে ঐ ইনসুলেটিং ম্যাটেরিয়াল এর ফ্লাশ পয়েন্ট বলে।

২৫। ভিসকোসিটি কি?

উত্তরঃ একটি তরলের ভিসকোসিটি বা আঠালতা বলতে উক্ত তরল প্রবাহের বাধার পরিমানকেই বুঝায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here