আধুনিক টেলিফোনের ট্রান্সমিশন পদ্ধতি

0
54

বেশ কিছু সুবিধার জন্য টেলিফোন সিস্টেম ট্রান্সমিশন হিসাবে কার্বন ট্রান্সমিটার ব্যবহার করা হয়। টেলিফোন ট্রান্সমিটার এক ধরনের ট্রান্সডিউসার যা সাউন্ড এনার্জিকে ইলেক্ট্রিক্যাল এনার্জিতে রূপান্তর করে। বর্তমান যুগে কার্বন গ্র‍্যানুয়েল ট্রান্সমিটার টেলিফোন হ্যান্ডসেটে বহুলভাবে ব্যবহার হয়। কার্বন মাইক্রোফোনের মধ্যে কার্বনের গুড়ার পর্যায়ক্রমিক সংকোচন ও প্রসারণ ক্রিয়ার ফলে এর অভ্যন্তরীণ রেজিস্ট্যান্স এর যে পরিবর্তন হয় তার ফলে সাউন্ড ওয়েভ ইলেকট্রিক্যাল এনার্জিতে রূপান্তরিত হয়। এটা একটি হাই সেন্সেটিভ সম্পন্ন এবং দক্ষ আধুনিক ট্রান্সমিটার। এজন্য ইহা টেলিফোন ট্রান্সমিটার হিসাবে বহুল ব্যবহৃত হয়।




গঠনঃ 

  • কার্বন গ্র‍্যানুয়েল চেম্বার
  • কার্বন ইলেকট্রোড
  • কনিক্যাল ডায়াগ্রাম
  • মাইকা ও সিল্ক ওয়াশার
  • বডি 

কার্বন মাইক্রোফোনে একটি ছোট প্রোটেক্টরের মধ্যে কার্বনের গুড়াগুলোকে ছোট একটি গ্র‍্যানুয়েল চেম্বারে রাখা হয়। উক্ত চেম্বারের ভিতর দুইটি কার্বন ইলেকট্রোড বসানো থাকে। প্রটেক্টর হতে ইলেক্ট্রোডদ্বয় ইনসুলেটেড করা থাকে যাতে শর্ট সার্কিট না হয়। ইলেক্ট্রোডদ্বয়ের একটি স্থির এবং অপরটি ডায়াফ্রামের সাথে আটকানো থাকে যাতে নড়াচড়া করতে পারে। ইলেক্ট্রোডদ্বয়ের মধ্যবর্তী রেজিস্ট্যান্সই হল ট্রান্সমিটার রেজিস্ট্যান্স।

কার্যপ্রণালীঃ
যখন কোন শব্দ তরঙ্গ ডায়াফ্রামের উপর আঘাত করে, তখন ডায়াফ্রামের সাথে সংযুক্ত কার্বন ইলেকট্রোড এর মাধ্যমে কার্বনের গুড়াগুলি সংকোচিত ও প্রসারিত হয়ে থাকে। ফলে কার্বনের রেজিস্ট্যান্স কম বেশি হয়। এই পরিবর্তনশীল রেজিস্ট্যান্স এর জন্য বাহ্যিক সার্কিটে কারেন্ট প্রবাহিত হয়। এভাবেই একটি কার্বন গ্র‍্যানুয়্যাল শব্দ শক্তিকে বৈদ্যুতিক শক্তিতে রূপান্তর করে।

রিসিভিং সিস্টেমঃ
ইহা একটি ট্রান্সডিউসার যা বৈদ্যুতিক শক্তিকে শব্দ শক্তিতে রূপান্তর করে। ইহার প্রয়োজনীয় অংশ গুলো হল,, পার্মানেন্ট চুম্বক(PM) ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক কয়েল, প্রোটেক্টিভ কভার, মোভেবল ডায়াফ্রাম। 

কার্যপ্রণালীঃ 
ট্রান্সমিটার হতে আগত অডিও ফ্রিকুয়েন্সি যখন ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক কয়েলের মধ্যদিয়ে প্রবাহিত হয় তখন কয়েলের মধ্যে একটি পরিবর্তনশীল ফ্লাক্স উৎপন্ন হয়। যেহেতু প্রযুক্ত সিগন্যাল AC তাই এতে উৎপন্ন ফ্লাক্সের দিক দুই ধরনের হয়। যখন কয়েলের ফ্লাক্স ও পার্মানেন্ট চুম্বক(PM) এর ফ্লাক্স পরস্পর একই দিকে হয়, তখন ডায়াফ্রাম টি PM এর কাছে আসে। আবার যখন পরস্পর বিপরীতমূখী হয়, তখন ডায়াফ্রাম টি PM হতে দূরে সরে যায়।



LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here